Ultimate magazine theme for WordPress.

যেকোন সময় নগর ছাত্রদলের কমিটি

অনলাইন ডেস্ক


ছাত্রদলের সুপার ইউনিট খ্যাত ঢাকা মহানগর পূর্ব-পশ্চিম ও উত্তর-দক্ষিণে ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে একেবারে শেষ পর্যায়ের তোরজোড় চলছে। কোরবানির ঈদের আগেই এসব কমিটি ঘোষণা করতে চায় কেন্দ্রীয় সংসদ। এজন্য দফায় দফায় বৈঠকও করছেন দায়িত্বশীল নেতৃবৃন্দ। খোঁজ নিচ্ছেন প্রত্যেক পদ প্রত্যাশীর। এসব শেষ করেই খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ এই চার ইউনিট ঘোষণা করা হবে বলে ছাত্রদলের একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে।

গত ১৬ জুন মেয়াদোত্তীর্ণ ঢাকা মহানগর উত্তর, দক্ষিণ, পূর্ব ও পশ্চিম ছাত্রদলের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে ছাত্রদল।

ওই সময়ে ছাত্রদল জানায়, প্রতিটি ইউনিটকে সুশৃঙ্খল, সুসংগঠিত ও গতিশীল করে গড়ে তোলার জন্য আগামী এক মাসের মধ্যে সংশ্লিষ্ঠ নতুন কমিটি গঠন করা হবে।

সূত্র জানিয়েছে, আন্দোলন সংগ্রামের নিউক্লিয়াস হিসেবে বিবেচিত ঢাকা মহানগর আগামীর যেকোন আন্দোলনে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে, সেই দিক বিবেচনায় রাজপথের ত্যাগী ও যোগ্যদেরকেই নেতৃত্বে আনার পরামর্শ দিয়েছেন ছাত্রদলের সাংগঠনিক অভিভাবক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। তার নির্দেশনায় ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদও চায় চার মহানগরে পরিচ্ছন্ন নেতাকে বেছে নিতে। কিন্তু এর মধ্যে বিভিন্ন সিন্ডিকেট তৎপর হয়ে তাদের পছন্দ মতো কমিটি গঠনের জন্য ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দকে চাপ সৃষ্টি করছেন। আবার ছাত্রদলের সুপার ফাইভ কমিটিরও দুই-একজন নেতা ওই সিন্ডিকেট নির্ভর রাজনীতির কারণে তাদের পছন্দের প্রার্থীকে প্রাধান্য দিতে ছাত্রদলের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদককে বাধ্য করতে চাইছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক ছাত্রদলের একজন সিনিয়র নেতা জানান, যতই চাপ প্রয়োগ করা হোক আমরা অন্যায়ের কাছে মাথানত করবো না। আর নতুন এই কমিটিতে থাকবে চমক। মহানগর কেন্দ্রিক রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন এমন নেতাদেরই মূল্যায়ন করা হচ্ছে।

জানা গেছে, পূর্ব-পশ্চিম ও উত্তর-দক্ষিণে আহ্বায়ক কমিটি হওয়ার খবরে তৃণমূল নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.